দুষিত পানি বোতলে :

দুষিত পানি বোতলে :

খাদ্যে ভেজাল ও এর ক্ষতিকারক প্রভাব

ফলমুল, দুধ, মাছে ফলমালিন-কার্বাইডের বিষ, অন্যান্য খাদ্যপণ্যও ভেজালমুক্ত রাখা যায়নি। এমনকি জীবনধারণের জন্য সবচেয়ে জরুরী ”পান’’ পর্যন্ত নিরাপদ থাকছে না। যত্রতত্র নকল কারখানা বানিয়ে পুকুর ডোবা এবং ওয়াসার পানি বিশুদ্ধকরণ ছাড়া বোতলজাত করেই বিশুদ্ধ মিনারেল পানি বলে বাজারে সরবরাহ করা হচ্ছে। প্লাস্টিক জার (বড় আকারের বোতল) ভরা পানি বাসা-বাড়ি, অফিস-আদালতে পৌঁছানোর মাধ্যমেও জমে উঠেছে দুষিত পানির রমরমা ব্যবসা। জীবন সক্ষাকারী পানি নিয়ে মরণঘাতী খেলা চলছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মৃত্তিকা, পানি ও পরিবেশ বিভাগের পরীক্ষাগারে বোতলজাত পানি পরীক্ষা-নিরীক্ষায় অতি নিম্নমানের পানি হিসেবেও চিহ্নিত হয়েছে। বিএসটিআই কর্মকর্তারা দেশের সর্বত্র নিম্নমানের পানি বাজারজাত হওয়ার কথা স্বীকার করে বলেছেন, বেশীর ভাগ পানি কোম্পানী নকল এবং ভুয়া । সংশ্লিষ্ট পরিচালক জানিয়েছেন, মাত্র ১৯টি কোম্পানী অনুমোদন নিলেও দেশজুড়ে বোতলজাত পানির জার সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা প্রায় তিন শতাধিক। এর মধ্যে একটিরও বিএটিআইয়ের অনুমোদন নেই। ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক বলেছেন, কোনো রকম অনুমোদন ছাড়াই ওয়াসার সরবরাহ লাইনের পানি গামছায় ছেকে বোতলে ভরে বাণিজ্য করা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *