কাঠাঁলের বিচির স্বাস্থ্য উপকারিতা

কাঠাঁলের বিচির স্বাস্থ্য উপকারিতা
কাঠাঁলের বিচির স্বাস্থ্য উপকারিতা

কাঠালের বিচি আমাদের দেশে একটি অত্যন্ত জনপ্রিয় খাবার। বিভিন্ন ধরনের তরকারিতে আলুর বিকল্প হিসেবে ব্যবহার করা হয় এটি। কাঠালের বিচির ভর্তা অনেকেরই খুব পছন্দের। জনপ্রিয় এ খাবারটির স্বাদের কথা প্রায় সবারই জানা থাকলেও এর পুষ্টিগুন সম্পর্কে আমরা অনেকেই জানি না।

গবেষণায় দেখা গেছে, প্রায় একশ গ্রাম সমপরিমাণ কাঠালের বিচিতে ৯৮ ক্যালোরি এনার্জি পাওয়া যায়। কাঠালের বিচিতে রয়েছে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট যা ক্যান্সার প্রতিরোধের পাশাপাশি বুড়িয়ে যাওয়াকে বিলম্বিত করতে গুরত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখে। কাঠালের বিচিতে রয়েছে প্রচুর প্রোটিন, যা মাছ বা মাংসের বিকল্প হিসেবে শরীরের আমষের চাহিদা পূরন করতে সক্ষম। কাঠালের বিচির উচ্চমানের পটাশিয়াম রক্তে সুগারের মাত্রা নিয়ন্তণে রাখে।

কাঠাঁলের বিচির স্বাস্থ্য উপকারিতা
কাঠাঁলের বিচির স্বাস্থ্য উপকারিতা

এছাড়া শরীরের স্নায়ুতন্ত্রকে শক্তিশালী করা , পরিপাক প্রক্রিয়ার সহায়তা করা এবং কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে গুরত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। গবেষকরা জানিয়েছেন, অল্প খরচে পুষ্টির চাহিদা মেটাতে এটি অদ্বিতীয়। এতে উচ্চমানের প্রোটিন, ফঅইবার, কার্বোহাইড্রেট, ক্যালসিয়াম, ফসফরাস , আয়রন ও বিভিন্ন ধরনের ভিটামিন রয়েছে। যেহেতু এটি সংরক্ষনযোগ্য, তাই শুধু কাঠালের মৌসুমে নয়, এটি হতে পারে সারা বছরের পুষ্টির জোগানদাতা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *